1. press.shohel@gmail.com : banglardristi24.com :
  2. md92alilove@gmail.com : banglardristi24 : Ali hossain
বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ১০:২০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মুক্তিযুদ্ধে বিদেশী বন্ধু ফাদার রিগনের তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত ১১ দফা দাবীতে দুই বছরে ৪ দফায় কর্মবিরতি পণ্যবাহী নৌযান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি, প্রভাব পড়েছে মোংলা বন্দরে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা পরিষদের উপ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ চলছে রায়পুরে উপ-নির্বাচন; প্রশাসনের উপস্থিতিতে সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম লক্ষ্মীপুরে ৪টি ইউনিয়নে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে সাত কার্যদিবসে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারকাজ শেষ বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণের মামলায় মান্নানের আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়েছে আদালত বাগেরহাটে পুলিশের ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ বাগেরহাটের রামপালে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবসে উপমন্ত্রী বাগেরহাটে এক এনজিওকর্মীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, এক ধর্ষক গ্রেপ্তার রায়পুরে গৃহবধুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার : স্বামী আটক

পদ্মা ও শাখা নদী গড়াইয়ের এখন ভরা যৌবনবাড়ছে পানি চিন্তিত নদী পারের বাসীন্দা

ওলিউর রহমান অপু : কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম: রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০
  • ৯৭ বার পড়া হয়েছে:

ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করা প্রবাদটি যেন জেলেদের জীবন ও জীবিকার সাথে নিবিড় ভাবে জড়িত । তোমনি আষাঢ়ের শুরুতে মরা পদ্মায় শাখা নদী গড়াই এখন ভরা যৌবন। উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানিতে প্রতিদিন একটু একটু করে পানি বাড়ছে। চারিদিকে ঘোলা পানি জেগে ওঠা মধ্যচরেও পানি। তবে এখনো ডোবাতে পারেনি তীরের সবুজ কাশবনকে । এখন আবার উজানে (ভারত) ব্যাপক বর্ষণ হওয়ায় সেই পানি গঙ্গা হয়ে পদ্মায় নামছে প্রবাহিত হচ্ছে শাখা নদী গড়াই। ওপারের পানির চাপ কমাতে খুলে দেয়া হয়েছে ফারাক্কার গেটগুলো। নাব্যতা হারানো পদ্মা ও শাখা গড়াই নদীতে এক সাথে ছুটে আসা পানিতে এমনিতে ফুসে উঠছে। নদীর পানির গতি বিধি অব্যাহত থাকলে উজান থেকে নেমে আসা ঢল ও বিলম্বিত বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পানি বাড়তেই থাকবেই। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ও অসময়ের বন্যায় কয়েক জেলার বন্যা সৃষ্টি হয়েছে ।নদীতে পানি বৃদ্ধি নিয়ে আতংকিত নদীপাড়ের বসবাস রত মানুষ । অরক্ষিত নদী পার ও বাঁধ না থাকায় পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে এলাকায় আতঙ্ক । তাছাড়া এখন উজানের পানির উচ্চতা বেশি । সহজেই পানি প্রবেশ করতে পারে ও প্লাবিত হওয়ার সঙ্কা তবে নদীর পানি বৃদ্ধিতে পদ্মা ও শাখা নদী গড়াই পাড়ের মানুষের মধ্যে শংঙ্কা রয়ে গেছে।যদিও গেল বছর বিপদসীমা সব রেকর্ড ভেঙে অতিক্রম করেছে । গতকাল বিকেলে পদ্মার তীর ঘুরে দেখা যায় ভরা পদ্মার রুপ দেখতে তীরজুড়ে বিভিন্ন বয়েসী হাজারো মানুষের ভীড়। কথায় আছে নদীর একূল ভাঙ্গে ঐকূল গড়ে দলবেধে নৌকায় ভাসছেন। নৌকাগুলো সাধারণত তীর ঘেঁষে এ প্রান্ত থেকেও প্রান্ত পর্যন্ত যাতায়াত করছে। সতর্ককতা হিসাবে দেখা মেলেনি নৌকা গুলোর । অনেকে আবার সাহস করে নৌকা নিয়ে মাঝ নদীতে যাচ্ছেন। মাঝির নৌকায় যাত্রীরা জানালেন মাঝ নদীতে গেলে মনে হয় যেন সমুদ্রে এসেছি। চারিদিকে অথৈ পানি। এ এক অন্যরকম রোমাঞ্চ। কেউ কেউ আক্ষেপ করে বলেন এমন অবস্থা আর কটাদিন থাকবে। তারপর পানির স্থলে ধূ ধূ বালিচর। এর মাঝে পদ্মার রুপালী ইলিশের খোঁজে ডিঙ্গী নৌকায় জাল নিয়ে নেমেছে জেলের দল। কিন্তু সেই রুপালী ইলিশের দেখা মেলেনি। কারো কারো জালে জাটকা আকারের দু’চারটা ইলিশ ধরা পড়ছে। এবার অন্য মাছের সংখ্যা কম পাওয়া যাচ্ছে বলে মাছ ধরা জেলেরা জানান। তারপর চিংড়ী বেলে ঘেড়ে পাবদা মাছ যা পাচ্ছেন তা ভাল দামে ক্রেতারা কিনছেন। নদীর এসব টাটকা মাছের স্বাদই যে আলাদা। আবার চোখে মিললো অসংখ্য মাছ ধরার ফাঁদ বা মশারি জালে তৈরি করা দোয়ার যার মাধ্যমে মাছের পোনা ফাঁদে আটকা পড়েছে । অনেকেই বলেছেন এমন অবস্থায় চলতে থাকলে কয়েক বছরের মধ্যে দেশি জাতের মাছ নিধন হয়ে যাবে । এইজন্য সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ও সচেতনতা মূলক মাইকিং ও লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে মাছ রক্ষা করা সম্ভব হবে ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার