1. press.shohel@gmail.com : banglardristi24.com :
  2. md92alilove@gmail.com : banglardristi24 : Ali hossain
বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:২৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মুক্তিযুদ্ধে বিদেশী বন্ধু ফাদার রিগনের তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত ১১ দফা দাবীতে দুই বছরে ৪ দফায় কর্মবিরতি পণ্যবাহী নৌযান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি, প্রভাব পড়েছে মোংলা বন্দরে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা পরিষদের উপ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ চলছে রায়পুরে উপ-নির্বাচন; প্রশাসনের উপস্থিতিতে সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম লক্ষ্মীপুরে ৪টি ইউনিয়নে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে সাত কার্যদিবসে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারকাজ শেষ বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণের মামলায় মান্নানের আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়েছে আদালত বাগেরহাটে পুলিশের ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ বাগেরহাটের রামপালে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবসে উপমন্ত্রী বাগেরহাটে এক এনজিওকর্মীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, এক ধর্ষক গ্রেপ্তার রায়পুরে গৃহবধুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার : স্বামী আটক

সিলেটের নদ-নদীগুলোর পানি ফের বাড়তে শুরু করেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ২১ জুলাই, ২০২০
  • ৭৯ বার পড়া হয়েছে:

পরিস্থিতি ফের খারাপের দিকে যাচ্ছে। আগের দুই দফার ক্ষত কাটিতে উঠতে না উঠতেই এবার তৃতীয় দফার বন্যার ধাক্কা লাগছে সিলেট অঞ্চলে। সিলেটের নদ-নদীগুলোর পানি ফের বাড়তে শুরু করেছে। 

সুরমা, কুশিয়ারা আর সারি নদীর পানি ছুটছে বিপদসীমা পেরিয়ে। অব্যাহত বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল পরিস্থিতিকে করে তুলছে বিপজ্জনক। ইতিমধ্যেই তলিয়ে গেছে সিলেটের নিম্নাঞ্চল। আতঙ্ক বাড়ছে মানুষের।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) জানায়, সোমবার বিকাল ৬টায় সুরমা নদীর পানি কানাইঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ১৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৬টায় পানি বেড়ে বিপদসীমার ৮৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছে।

সুরমার পানি বেড়েছে সিলেট পয়েন্টেও। কাল এ পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৪৪ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। আজ বিকাল ৬টায় পানি বিপদসীমার মাত্র ১ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

কুশিয়ারা নদীর পানি ফেঞ্চুগঞ্জ পয়েন্টে আজ বিপৎসীমার ৪৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছিল। গতকালের চেয়ে পানি বেড়েছে ৩ সেন্টিমিটার। কুশিয়ারার পানি গতকালের চেয়ে আজ আমলশিদ পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার আর শেরপুর পয়েন্টে ৪ সেন্টিমিটার বেড়েছে।

সারি নদীর পানি গতকাল বিকাল ৬টায় বিপদসীমার অনেক নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। আজ বিকাল ৬টায় পানি বিপদসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছিল।

পানি বেড়েছে লোভা আর ধলাই নদীতেও।

পানি বাড়তে থাকায় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এবারের মৌসুমে আগের বন্যাগুলোর ক্ষত এখনও কাটিয়ে ওঠতে পারেনি মানুষ। এবার আরেক দফার বন্যা এসে হতদরিদ্র মানুষের অবস্থাকে করে দিচ্ছে বিপন্ন। বন্যার পানির ঢেউয়ের তোড়ে অনেকের ভিটে মাটিও ভাঙছে।

গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার অনেক মানুষ বন্যাকবলিত বাড়ি ছেড়ে আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়ে ওঠেছেন। কিন্তু আশ্রয়কেন্দ্রে মানুষের সংকুলানই না হওয়ায় গবাদিপশু নিয়ে তারা পড়েছেন বিপাকে। বাধ্য হয়ে অনেকে একেবারে নামমাত্র মূল্যে গবাদিপশু বিক্রি করে দিচ্ছেন।

সিলেট আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী বলেন, গতকাল সোমবার থেকে বর্ষণ শুরু হয়েছে, তা ২৪ তারিখ অবধি অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস রয়েছে। এর সাথে ভারতের আসাম ও মেঘালয়েও প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে। ফলে পরিস্থিতি হতে পারে বিপজ্জনক।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সিলেরে নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ শহীদুজ্জামান সরকার বন্যার শঙ্কা আছে বলে জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার